সোমবার, ৪ঠা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

৪২ কোটির মুকুটসহ আরও যা পাচ্ছেন মিস ইউনিভার্স হারনাজ

সুন্দরী বাছাইয়ের আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতা ‘মিস ইউনিভার্স’। বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে হাজার হাজার তরুণী এই প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়। কিন্তু সবশেষে গিয়ে মুকুট ওঠে একজনের মাথায়। ২০২১ সালে সেই মুকুট নিজের করে নিয়েছেন ভারতের চণ্ডীগড়ের তরুণী হারনাজ সান্ধু।

মিস ইউনিভার্স হওয়ার সুবাদে মুকুটসহ অনেক কিছুই পাচ্ছেন হারনাজ। তবে কেবল মুকুটের দাম শুনলেই মাথা ঘুরে যেতে পারে। জানা গেছে, এই মুকুটের দাম ৫ মিলিয়ন ডলার। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় ৪২ কোটি টাকার বেশি। প্রায় এক কেজি ওজনের মুকুটটিতে রয়েছে ১ হাজার ৭৭০টি হীরকখণ্ড।

হারনাজকে দেয়া মুকুটটি প্রকৃতি, সৌন্দর্য, নারীত্ব, ঐক্য ও শক্তির ওপর ভিত্তি করে তৈরি। মুকুটটিতে ১৮ ক্যারেট সোনা, ১ হাজার ৭৭০টি হিরে ও মাঝখানে একটি ঢাল কাটা সোনার সঙ্গে ক্যানারি হিরে রয়েছে। এই হিরের ওজন ৬২ দশমিক ৮৩ ক্যারেট।

বর্তমানে সবচেয়ে দামি মুকুট এটি। তৈরি করেছে মৌওয়াদ পাওয়ার অব ইউনিটি ক্রাউন। ২০১৯ সাল থেকে ক্রাউনটি দেয়া হচ্ছে। হারনাজের আগে এই মুকুট পেয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার জোজিবিনি ও মেক্সিকোর আন্দ্রেয়া।

তবে শুধু দামি মুকুট নয়, হারনাজ গোটা এক বছর ধরে নানান সুবিধা ভোগ করবেন। এক বছরের জন্য নিউইয়র্কে একটি পেন্টহাউসে থাকার সুযোগ, তার সঙ্গে মিস ইউনিভার্স সংস্থার প্রধান ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হয়ে বিশ্বভ্রমণ করতে পারবেন তিনি।

মিস ইউনিভার্স হারনাজের ত্বক ও ডায়েটের জন্য বিশেষজ্ঞ, ব্যক্তিগত মেকআপ আর্টিস্ট থাকবে। খাবার জিনিস থেকে পোশাক সবই পাবেন সংস্থার পক্ষ থেকে। সেখান থেকে তাকে মডেলিংয়ের জন্য একটি পোর্টফোলিও তৈরি করে দেয়া হবে। এর জন্য রাখা হবে বিশ্বের সেরা ফটোগ্রাফারদের। ফ্যাশন স্টাইলিস্ট, ত্বক এবং দাঁতের পরিষেবাও বিনামূল্যে পাবেন এই ভারতীয় তরুণী।

উল্লেখ্য, গত ১২ ডিসেম্বর রাতে ইসরায়েলের এইলাটে বসেছিল ৭০তম মিস ইউনিভার্সের আসর। সেখানেই প্যারাগুয়ের নাদিয়া ফেরেইরা ও দক্ষিণ আফ্রিকার লালেলা এমএসওয়ানেকে পেছনে ফেলে সেরার মুকুট ছিনিয়ে নেন ২১ বছরের সুন্দরী হারনাজ।

চিত্রজগত/ভিন্ন খবর

সংশ্লিষ্ট সংবাদ