মঙ্গলবার, ১৬ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

২১ বছর পর ভারতে মিস ইউনিভার্স মুকুট

২১ বছর পর আবারও এক ভারতীয় নারী পরলেন মিস ইউনিভার্স মুকুট। ইসরায়েলে এইলাতে ৮০ জনের মতো প্রতিযোগীকে হারিয়ে হারনাজ সান্ধু এই খেতাব জয় করেন। প্রতিদ্বন্দ্বী মিস প্যারাগুয়েকে জড়িয়ে ধরেই কেঁদে ফেলেন তিনি। দ্বিতীয় হয়েছে প্যারাগুয়ের সুন্দরী নাদিয়া ফেরিরা ও তৃতীয় হয়েছেন সাউথ আফ্রিকান সুন্দরী লালেলা মেসোয়েন।

২১ বছর আগে সর্বশেষ মিস ইউনিভার্স মুকুট পরেছিলেন ভারতের সুন্দরী লারা দত্ত। তার আগে প্রথম কোনো ভারতীয় নারী হিসেবে এই খেতাব অর্জন করেন সুস্মিতা সেন, ১৯৯৪ সালে। এবার পাঞ্জাবের তরুণী হারনাজ সান্ধু হলেন মিস ইউনিভার্স ২০২১।

লোহিত সাগরের পাড়ে ইসরায়েলের পর্যটক শহর এইলাটে রোববার (১২ ডিসেম্বর) মধ্যরাতে এক জমকালো অনুষ্ঠানে হারনাজকে মিস ইউনিভার্স মুকুট পরিয়ে দেন তার পূর্বসূরি মেক্সিকোর আন্দ্রেয়া মেসা।

শেষবার যে বছর ভারত মিস ইউনিভার্স জিতেছিল, সেই ২০০০ সালে হারনাজের জন্ম হয়। লম্বা বিরতির পর ভারতের এই জয়ের বিষয়টি উঠে এসেছে তার বক্তব্যে। বলেন, ‘আমি আপ্লুত কারণ শেষবার ২১ বছর আগে এই মিস ইউনিভার্স খেতাব জয় করেছিল ভারত, এবার তা আবারও ঘটলো।’

গত কয়েকবছর ধরে গ্ল্যামার ওয়ার্ল্ডের সাথে যুক্ত হারনাজ সান্ধু পড়াশোনা করছেন চণ্ডিগড়ে। এর আগে ২০১৭ সালে তিনি মিস চণ্ডিগড় খেতাব জিতেছিলেন। ইতোমধ্যে ভারতের বেশ কয়েকটি সুন্দরী প্রতিযোগিতায় জিতেছেন তিনি।

নারীর ক্ষমতায়নের সমর্থক হিসেবে পরিচয় দেয়া ২১ বছর বয়সি এই ভারত সুন্দরী অবসর সময়ে নাচ, ইয়োগা, রান্না, ঘোড়ায় চড়া বা দাবা খেলতে ভালোবাসেন। জীবনের প্রেরণা হিসেবে নিজের স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ মা এবং ভারতীয় নায়িকা প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার কথা জানান তিনি।

ফিলিস্তিনের প্রতি ইসরায়েলের আচরণের প্রতিবাদ হিসেবে মিস ইউনিভার্স উৎসব বয়কটের আহ্বান জানিয়েছিল ফিলিস্তিনের নেতৃত্বে একটি তৃণমূল গোষ্ঠী। এরপর করোনা পরিস্থিতির অজুহাত দেখিয়ে মালয়েশিয়া উৎসব থেকে দেশটির প্রতিনিধিকে সরিয়ে নেয়। আর দক্ষিণ আফ্রিকার সরকার দেশটির প্রতিযোগীর ওপর থেকে সমর্থন সরিয়ে নেয়। মেসা অবশ্য গতমাসে এই প্রতিযোগিতা থেকে রাজনীতিকে দূরে রাখার আহ্বান জানিয়েছিলেন।

ইসরায়েলের সঙ্গে বাংলাদেশের কূটনৈতিক সম্পর্ক না থাকায় ভ্রমণ জটিলতার কারণে এবারের আসরে বাংলাদেশ থেকে কারও অংশ নেওয়া হয়নি।

চিত্রজগত/অন্যলোক

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

এই সপ্তাহের পাঠকপ্রিয়