বৃহস্পতিবার, ৯ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

স্মরণ: জনপ্রিয় কৌতুক অভিনেতা মতি’র ২৮তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

জনপ্রিয় কৌতুক অভিনেতা মতি’র ২৮তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ। তিনি ১৯৯৩ সালের ১৬ নভেম্বর, ঢাকায় মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৬০ বছর। প্রয়াত এই গুণী অভিনেতার প্রতি জানাই বিনম্র শ্রদ্ধা। তাঁর বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করি।

মতি (মতিউর রহমান) ১৯৩৩ সালের ৩ অক্টোবর, ময়মনসিংহের বাঘমারাতে জন্মগ্রহণ করেন। বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের খুবই জনপ্রিয় কৌতুক অভিনেতা ছিলেন তিনি।

১৯৬৮ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত সৈয়দ আউয়াল পরিচালিত, ‘অপরিচিতা’ ছবিতে অভিনয়ের মাধ্যমে চলচ্চিত্রে আসেন মতি। তিনি আরো যেসব ছবিতে অভিনয় করছেন তারমধ্যে উল্লেখযোগ্য– দস্যুরাণী, দয়ালমুর্শিদ, আমার জন্মভুমি, পরিচয়, আশা, অতিথি, কার হাসি কে হাসে, মালকাবানু, সোনার খেলনা, অবাক পৃথিবী, গুণ্ডা, জয় পরাজয়, বধূ বিদায়, দাতা হাতেমতাই, তাজ ও তলোয়ার, ওমর শরীফ, শহর থেকে দূরে, সিকান্দার, লালু ভুলু, নাগনাগিণী, চন্দ্রলেখা, ঈমান, গাংচিল, রাজকন্যা, জনতা এক্সপ্রেস, তাল-বেতাল, অমরপ্রেম, বন্ধু, বিজলী, ছক্কাপাঞ্জা, নদেরচাঁদ, ওয়াদা, মোকাবেলা, আবেহায়াৎ, সোহাগ মিলন, মাসুম, সওদাগর, রাজা সাহেব, লালকাজল, বাহাদুর নওজোয়ান, মমতা, রাজসিংহাসন, পদ্মাবতী, লাইলী মজনু, আন্দাজ, শাহজাদা, সুলতানা ডাকু, কোহিনূর, জালিম, নতুন পৃথিবী, হাইজ্যাক, নকল শাহজাদা, নূরী, ঈদ মোবারক, সতী কমলা, কোরবানী, লড়াকু, শাহ জামাল, রঙ্গীন রাখালবন্ধু, কুঁচবরণ কন্যা মেঘবরণ কেশ, শীশমহল, প্রভৃতি ।

পৃথিবীর সব চেয়ে কঠিন কাজ মানুষকে হাসানো। মানুষকে হাসানোর এই কঠিন কাজগুলো চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে যারা করতেন, তাদের অন্যতম একজন ছিলেন কৌতুক অভিনেতা মতি। ঢাকাই চলচ্চিত্রের অতি পরিচিত মুখ, একজন মেধাবী কৌতুক অভিনেতা ছিলেন তিনি।
তাঁর সহজ-সরল হাস্যরসবোধ সংলাপ সিনেমাদর্শকদের বিনোদিত করত। কৌতুক অভিনেতা হিসেবে খুবই জনপ্রিয় ছিলেন তিনি।

শুরুর দিকে তাঁকে ভিলেন হিসেবেও অভিনয় করতে দেখা গেছে। পরবর্তিতে কৌতুক অভিনেতা হিসেবেই সফলতা ও জনপ্রিয়তা পেয়েছেন।

এক সময় নায়ক ওয়াসীম অভিনীত প্রায় সবগুলো ছবিতেই মতি ছিলেন ওয়াসিম-এর জুটি হয়ে। দর্শকদের আনন্দ দিতে কৌতুকাভীনেতা এবং সহনায়কের মত হয়ে, অনেকগুলো ছবিতে অভিনয় করেন এবং দর্শকপ্রিয়তা পান।

এই জনপ্রিয় কৌতুক অভিনেতা, নিয়তীর অমোঘ নিয়মে চলে যান পরপারে। মতি তাঁর চলচ্চিত্র কর্মের মাধ্যমে, চিরঅম্লান হয়ে থাকবেন আমাদের মাঝে।

# প্রতিবেদনে ব্যবহৃত ছবিগুলো ফিরোজ এম হাসান (প্রয়াত)-এর তোলা

চিত্রজগত/ঢালিউড

সংশ্লিষ্ট সংবাদ