মঙ্গলবার, ২৭শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

বাংলা চলচ্চিত্র বাঁচাতে কলকাতায় সরকারি সিনেমা হল

ভারতের হলিউড, বলিউড, দক্ষিণী সিনেমার সঙ্গে টেক্কা দিয়ে বাংলা ছবিকে বাঁচিয়ে রাখতে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের উদ্যোগে তৈরি হলো সরকারি সিনেমা হল। যেখানে চলবে শুধুমাত্র টালিউডের বাংলা সিনেমা। বাংলার দর্শককে বাংলা সিনেমামুখী করতে এই উদ্যোগ নিয়েছে পশ্চিমবঙ্গের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার।

কলকাতার বাঙ্গুর হাসপাতালের পাশে এককালে ছিল স্টুডিও, রাজ্য সরকারের তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে আজ শুক্রবার থেকে সেটিই হয়ে উঠল সিনেমা হল। টলিপাড়ার স্মৃতিবিজড়িত সিঙ্গেল স্ক্রিনের রাধা স্টুডিওকে চলচ্চিত্র শতবার্ষিকী ভবন হিসেবে সংস্কার করা হয়েছিল আগেই। চলচ্চিত্র সংগ্রহালয় হিসেবে বানানো হয়েছিল এই ভবন। নির্মিত হয়েছিল দেড়শ আসনের অডিটোরিয়াম। সিনেমা নিয়ে লেখাপড়া ও গবেষণা করা ছাত্রছাত্রীরা এতে উপকৃত হয়েছেন। এবার কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে ছবি দেখানো হয়েছিল এখানেও। তবে এছাড়া বাকি সময় ফাঁকাই থাকত হলটি। এমনকি টিকাদান কেন্দ্র হিসেবেও ব্যবহৃত হয়েছে এই শতবার্ষিকী ভবন। এবার পুরোদস্তুর সিনেমা হল বানিয়ে ফেলা হলো।

পশ্চিমবঙ্গের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় একাধিকবার বলেছেন, তিনি বাংলা সিনেমাকে নিয়ে বলিউড এবং হলিউডের সাথে লড়াই করার স্বপ্ন দেখেন। আর এই লড়াইয়ের জন্য এই সিনেমা হল বানিয়ে এক পা এগিয়ে গেল রাজ্য সরকার। যেখানে মাত্র ৩০ রুপি দিয়ে সিনেমা দেখতে পারবে সাধারণ মানুষ।

আজ থেকে দিনে তিনটি শো হবে এই হলে। দুপুর ১টা, বিকেল ৪টা এবং সন্ধ্যা ৭টায় দেখা যাবে বাংলা সিনেমা। শুরুর দিন আজ দুপুর ১টায় দেখানো হয়েছে দেব অভিনীত ‘কিশমিশ’, বিকেল ৪টায় সোহম-প্রিয়াঙ্কার ‘কলকাতার হ্যারি’ এবং সন্ধ্যা ৭টায় অনির্বাণ চক্রবর্তীর ‘একেনবাবু’।

আজ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পশ্চিমবঙ্গের মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস, ইন্দ্রনীল সেন, সাংসদ অভিনেতা দেব, পরিচালক হরনাথ চক্রবর্তী, পরিচালক গৌতম ঘোষ এবং বিধায়ক অভিনেতা সোহম চক্রবর্তীসহ অনেকে।

চিত্রজগত/চলচ্চিত্র

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

এই সপ্তাহের পাঠকপ্রিয়