সোমবার, ১৫ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

অভিনেত্রী তুষ্টি’র মাতৃবিয়োগ!

বছর খানেক নানান রোগে ভোগার পর অবশেষে সোমবার (৩১ জানুয়ারি) ভোরে মারা যান অভিনয়শিল্পী শামীমা তুষ্টির মা মাকসুদা ইসলাম। মৃত্যুর সময় তাঁর বয়স হয়েছিল ৫৬ বছর। বাদ জোহর তাঁকে ঢাকার খিলগাঁওয়ের একটি কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে। তুষ্টি জানান, গেল এক বছর তাঁর মা কিডনি ও ফুসফুসের নানা রোগে ভুগছিলেন। ডায়ালাইসিসও চলছিল। একাধিক হাসপাতালের আইসিইউ ও সিসিইউতে মাকে নিয়ে একটা বছর দৌড়াদৌড়ি করেছেন তিনি।

শামীমা তুষ্টি বলেন, ‘আম্মা দীর্ঘদিন ধরে কিডনি রোগে ভুলছিলেন। এরপর তাঁর ফুসফুসেরও সমস্যা হয়। একটা সময় আম্মার শ্বাসকষ্ট শুরু হলে বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাসেবা দেওয়া হয়। দিনে দিনে আম্মার শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে থাকে। পরের দিকে তো অবশ্য বাসায় চিকিৎসার সরঞ্জাম এনে আম্মার চিকিৎসাসেবা দেওয়া হয়েছে। রোববারও আম্মার ডায়ালাইসিস করানো হয়। রাতে শারীরিক অবস্থা খারাপ হতে থাকে। ভোরে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন আম্মা।’ মায়ের জন্য সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন এই অভিনয়শিল্পী।

শামীমা তুষ্টি নিয়মিত অভিনয়ের পাশাপাশি রাজনীতির সঙ্গেও সম্পৃক্ত। তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সংস্কৃতিবিষয়ক সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। মায়ের মৃত্যুর পর ফেসবুকে শামীমা তুষ্টি লিখেছেন, ‘মা চলেই গেলো … মা।’
এদিকে শামীমা তুষ্টির মায়ের মৃত্যুর খবরে তাঁর অভিনয় অঙ্গনের সহকর্মীরা শোকাহত। অভিনয়শিল্পী সংঘের সাধারণ সম্পাদক রওনক হাসান লেখেন, ‘গত এক বছর ধরে মাকে নিয়ে যে সংগ্রামটা তুমি করছিলে, আজ তারও অবসান হলো! আমাদের তুষ্টি, শামীমা তুষ্টির মা আজ না ফেরার দেশে চলে গেলেন। মায়ের আত্মার শান্তি হোক। মা হারানোর বেদনার কোনো সান্ত্বনা হয় না।’ অভিনেতা সাজু খাদেম বলেন, ‘আমাদের প্রিয় বন্ধু অভিনেত্রী তুষ্টির মায়ের মৃত্যুতে আমরা গভীরভাবে শোকাহত।’

চিত্রজগত/টেলিভিশন

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

এই সপ্তাহের পাঠকপ্রিয়