রবিবার, ১৬ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

২০০ কোটি রূপি জালিয়াতির মামলায় অভিযুক্ত জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজ

সংগৃহীত ছবি -- চিত্রজগত.কম

ইডি’র দাবি, তদন্তে স্পষ্ট বোঝা গেছে যে জ্যাকুলিন জানতেন সুকেশ একজন জালিয়াত। জেনেবুঝেই এই জালিয়াতির টাকায় সুযোগ-সুবিধা ভোগ করেছেন তিনি।

এতদিন সন্দেহভাজনের তালিকায় ছিলেন, এবার ২০০ কোটি রূপির আর্থিক জালিয়াতি মামলার চার্জশিটে জুড়ে গেল বলিউড অভিনেত্রী জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজের নাম। প্রধান অভিযুক্ত সুকেশ চন্দ্রশেখরের বিরুদ্ধে এই মামলার চার্জশিট জমা হয়েছিল আরও আগেই। অতিরিক্ত চার্জশিটে অভিযুক্ত হিসাবে জ্যাকলিনের নামও যুক্ত করেছে ভারতের এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টোরেট (ইডি)।

ইডি’র দাবি, তদন্তে স্পষ্ট বোঝা গেছে যে জ্যাকুলিন জানতেন সুকেশ একজন জালিয়াত। জেনেবুঝেই এই জালিয়াতির টাকায় সুযোগ-সুবিধা ভোগ করেছেন তিনি। বুধবার মামলার অতিরিক্ত চার্জশিট আদালতে জমা দেওয়া হয়েছে বলে খবর ভারতীয় গণমাধ্যমের।

সুকেশের কাছ থেকে অনেকবার বহুমূল্য ‘উপহার’ পেয়েছেন অভিনেত্রী জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজ। ইডি’র জেরায় সেসব কথা স্বীকার করেছেন ‘কিক’ তারকা। ইতোমধ্যেই জ্যাকুলিনকে বেশ কয়েকবার জিজ্ঞাসাবাদ করেছেন ইডি গোয়েন্দারা। তার দেশ ছেড়ে বের হওয়ার উপরেও রয়েছে আদালতের নিষেধাজ্ঞা।

ইডি সূত্রের খবর, সুকেশের কাছ থেকে যেসব উপহার পেয়েছেন জ্যাকুলিন, সব মিলিয়ে তার মূল্য ১০ কোটি রূপির কম নয়। এর মধ্যে রয়েছে দামি গাড়ি, ৫২ লক্ষ টাকা দামের ঘোড়া, ৯ লক্ষ টাকার পার্সিয়ান বিড়াল। উপহারের তালিকায় আরও আছে- গুচি, শ্যানেলের একাধিক ডিজাইনার ব্যাগ, গুচির জিমওয়্যার, লুই ভ্যুতোর জুতো, দুই জোড়া হীরার কানের দুল এবং মূল্যবান পাথর বসানো ব্রেসলেট।

যদিও জ্যাকুলিনের দাবি, উপহার পাওয়া মিনি কুপার গাড়িটি তিনি সুকেশকে ফেরত দিয়ে দিয়েছিলেন। কিন্তু সব মিলিয়ে এখনো পর্যন্ত জ্যাকুলিনের ৭ কোটি রূপির বেশি সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করে রেখেছে ইডি। সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

চিত্রজগত/অপরাধ

সংশ্লিষ্ট সংবাদ