বৃহস্পতিবার, ৯ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

বিচ্ছেদের গুঞ্জন উড়য়ে বললেন মিথিলা

‘সৃজিত না থাকলে বাড়িটা ফাঁকা ফাঁকা লাগে’

সৃজিত-মিথিলা -- চিত্রজগত.কম

কখনও তাইল্যান্ড, কখনও তানজানিয়া কখনও বাংলাদেশ। এক দিকে নিজের কাজে ব্যস্ত মিথিলা। অন্য দিকে সৃজিতও ব্যস্ত মুম্বইয়ে। এরই মধ্যে তাদের নিয়ে নতুন গুঞ্জন টলিপাড়ায়।

বাংলাদেশের জনপ্রিয় নায়িকা রাফিয়াদ রশিদ মিথিলা আর কলকাতার জনপ্রিয় পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায়। বিয়ে হয়েছে তিন বছর হল। সম্প্রতি দুই তারকার হেঁয়ালি ভরা পোস্ট উস্কে দিয়েছে নতুন জল্পনা। কিছু দিন আগে ভালবাসার বিশ্বাসযোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে একটি পোস্টে মিথিলা লেখেন, ‘প্রকৃত প্রেম কী ভাবে বোঝা সম্ভব? প্রেমে কি ন্যায় হয়? ভালবাসা যে সত্যিই নেই, সেটা বোঝার জন্য কতটা পথ হাঁটতে হয়?’

অন্য দিকে সৃজিতও সমাজমাধ্যমে মার্কিন গায়ক বব ডিলানের লেখা ‘ফেয়ারওয়েল অ্যাঞ্জেলিনা’ গানের কয়েকটি লাইন লেখেন। ‘দেয়ার ইজ় নো নিড ফর অ্যাঙ্গার, দেয়ার ইজ় নো নিড ফর ব্লেম।’
সমুদ্র সৈকতে দিগন্তের দিকে তাকিয়ে সৃজিত। আঁকড়ে ধরে রয়েছেন এক মৃতপ্রায় গাছের ডাল। সৃজিত যে গানটির লাইন শেয়ার করেছেন নিঃসন্দেহে বিচ্ছেদের, বিষাদের গান। তা হলে কি গানের কথার মাধ্যমে তিনি পরোক্ষে ভাবে অন্য ইঙ্গিত দিতে চেয়েছেন! নায়িকা, পরিচালকের সম্পর্ক ঘিরে তৈরি হয়েছিল নানা প্রশ্ন।

আনন্দবাজার অনলাইনের কাছে সব ধোঁয়াশা খোলসা করলেন মিথিলা। বললেন, ‘এই শেষ কয়েক দিন অফিসের কাজে চূড়ান্ত ধকল গিয়েছে। আচমকাই দেখলাম অনেকে মেসেজ করছে। আরে ওটা আমার এমনি একটা ফোটোশুটের ছবি, তাতে মনে হল এই লেখাটা ভাল যাবে। আর তা ছাড়া সৃজিত যে বব ডিলানের গানটি দিয়েছিল, ওটা আমার আর সৃজিত দু’জনেরই প্রিয় গান। এই বছরটা আমার আর ওর বাইরেই কেটে গেল। যখন আমি কলকাতা আসি, সৃজিতকে ছাড়া বাড়িটা খুব ফাঁকা ফাঁকা লাগে। সুতরাং এই সব কথায় কান দেওয়ার আমার কোনও সময়ই নেই।’

এই মুহূর্তে নিজের অফিসের কাজ নিয়েই ব্যস্ত নায়িকা। বাংলাদেশের বেশ কিছু কাজ রয়েছে ঝুলিতে। কলকাতায়ও মুক্তির অপেক্ষায় তাঁর আগামী ছবি ‘মায়া’। মুম্বইয়ে ব্যস্ত সৃজিত আর মিথিলাও ব্যস্ত এনজিও’র কাজ নিয়ে, তাই আয়রা এবং তাঁর ঠাকুমা এখন একসঙ্গে সময় কাটাচ্ছেন।

চিত্রজগত ডটকম/সিনেমা

সংশ্লিষ্ট সংবাদ