সোমবার, ১৫ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

শেষবারের মতো এফডিসিতে ফারুক

চিত্রজগত ফটো -- চিত্রজগত.কম

অসুস্থ হওয়ার আগেও নিয়মিত এফডিসিতে আসতেন এই নায়ক। প্রাণ ভরে আড্ডাও দিতেন এফডিসির কোনো ঘুপচিতে বসে! মঙ্গলবার দুপুরেও তিনি এফডিসি এলেন, তবে আগের আসা আর আজকের আসার মধ্যে যোজন যোজন দূরত্ব!

বাংলা চলচ্চিত্রের অন্যতম একজন ছিলেন মিয়া ভাই খ্যাত অভিনেতা ফারুক। টানা ৫ দশক অভিনয় দিয়ে নিজেকে অন্য উচ্চতায় নিয়ে গিয়েছিলেন খ্যাতিমান এই অভিনেতা। পেয়েছিলেন কোটি ভক্তের ভালোবাসা। শুধু চলচ্চিত্রে অভিনয়ের সুবাধে নয়, সক্রিয় সংগঠক ও সহকর্মীদের সঙ্গে এরআগে অসংখ্যবার এসেছেন এফডিসিতে।

অসুস্থ হওয়ার আগেও নিয়মিত এফডিসিতে আসতেন এই নায়ক। প্রাণ ভরে আড্ডাও দিতেন এফডিসির কোনো ঘুপচিতে বসে! মঙ্গলবার দুপুরেও তিনি এফডিসি এলেন, তবে আগের আসা আর আজকের আসার মধ্যে যোজন যোজন দূরত্ব!

হ্যাঁ, নিথর দেহে শেষবারের মতো এফডিসিতে এলেন ফারুক। লাশবাহী গাড়িতে চড়ে মঙ্গলবার দুপুর ১টার দিকে এফডিসিতে প্রবেশ করেন তিনি। এসময় এফডিসিতে উপস্থিত ছিলেন শিল্পী সমিতি, পরিচালক সমিতির নেতৃবৃন্দসহ নতুন ও পুরনো প্রজন্মের নির্মাতা, অভিনেতা ও অভিনেত্রীরা।

এরআগে বেলা পৌনে ১২টার দিকে ফারুকের মরদেহ নেওয়া হয় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে। সেখানেই মিয়া ভাই খ্যাত এই নায়ককে শ্রদ্ধা জানান বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ।

সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের আয়োজনে সেই অনুষ্ঠানে প্রথমেই রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ও স্পিকারের পক্ষে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সংসদ সদস্য ফারুককে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। এই আনুষ্ঠানিকতায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের পক্ষে পুস্পস্তবক অর্পন করেন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

বেলা ১২টা ৩৫ মিনিটে শহীদ মিনার থেকে এফডিসির উদ্দেশে রওনা হয় চিত্রনায়ক ফারুককে বহনকারী লাশবাহী অ্যাম্বুলেন্সটি। তারআগে শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে ১ মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

সংবাদচিত্র ডটকম/বি. রি

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

এই সপ্তাহের পাঠকপ্রিয়