মঙ্গলবার, ১৬ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

বাংলা ও জাতিসংঘের দাপ্তরিক ছয় ভাষায় গান

বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) রাত ৮টায় আনুষ্ঠানিকভাবে উন্মোচন করা হয়েছে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও মহান শহীদ দিবস উপলক্ষে তৈরি ‘ত্যাগের গান’-এর। আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটের পরিচালক মো. শাফীউল মুজ নবীন গানটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ঘোষণা করেন। বাংলা ও জাতিসংঘের দাপ্তরিক ছয়টি ভাষায় এ গানটি তৈরি করা হয়েছে।

সিনেভিশন বাংলাদেশের প্রধান নির্বাহী চলচ্চিত্র পরিচালক জাফর ফিরোজের শুভেচ্ছা বক্তব্যের মাধ্যমে শুরু হয় অনুষ্ঠান। অনলাইনে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন, অনারারি কন্সুল, কনস্যুলেট অব দ্য রিপাবলিক অফ কোরিয়া, বাংলাদেশ এবং পিএইচপি ফ্যামিলির ভাইস প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মহসিন, আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটের সাবেক উপ-পরিচালক ড. কানিজ ফাতেমা, মাশা বিশ্ববিদ্যালয়, মালয়েশিয়ার অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আবুল বাশার এবং ইউনিভার্সিটি কুয়ালালুমপুরের অধ্যাপক ড. এটিএম ইমদাদুল হক।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন খ্যাতিমান লেখক, বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কারে ভূষিত অধ্যাপক ড. মোরশেদ শফিউল হাসান। শিল্পীদের মাঝে বক্তব্য রাখেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত শিল্পী ফাহমিদা নবী, আর জে রাজু, ইউক্রেন থেকে শিল্পী অলগা জো এবং মরক্কো থেকে শিল্পী আরিফ বেল। উপস্থাপনা করেন আরজে রাজুর।

প্রধান অতিথি বলেন, ‘যারাই দেশের জন্য কাজ করবে, তারাই সম্মানিত হবে। সেই সম্মানের কাজটি হয়েছে এই গানটির মাধ্যমে। ভাষা আন্দোলনের কথা পৃথিবী মাঝে ছড়িয়ে দেয়ার জন্য এই গানটি ভূমিকা রাখবে বলে আমি বিশ্বাস করি।’

ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, ‘দেশপ্রেম এবং দেশের সংস্কৃতির প্রতি ভালোবাসা থেকে এই গানটি তৈরি হয়েছে। সবার উচিত নিজ নিজ জায়গা থেকে এভাবে দেশের জন্য কাজ করা।’

অধ্যাপক ড. মোরশেদ শফিউল হাসান বলেন, ‘এই সময়ের জন্য এই গানটি একটি সুন্দর পদক্ষেপ। দেশের সর্বক্ষেত্রে বাংলা ভাষার ব্যবহারকে বাস্তবায়ন করতে পারলেই সালাম, রফিকদের ত্যাগ সার্থক হবে।’

জাফর ফিরোজের কথা ও সুরে গানটির সংগীত পরিচালনা করেছেন সজীব দাস। এতে বাংলাদেশ থেকে কণ্ঠ দিয়েছেন ফাহমিদা নবী ও আরজে রাজু। আরবি ভাষায় মরক্কোর শিল্পী আরিফ বেল, চাইনিজ ভাষায় সিঙ্গাপুরের শিল্পী জুলিয়ান, ইংরেজি ভাষায় ভেনিজুয়েলার শিল্পী মারকিউস গুনডে, ফ্রেঞ্চ ভাষায় ফ্রেঞ্চ শিল্পী বেঞ্জামিন, রাশিয়ান ভাষায় ইউক্রেইন থেকে অলগা জো এবং স্প্যানিশ ভাষায় গেয়েছেন স্পেনের শিল্পী পিসুছকি ও রোমানিয়ান শিল্পী কেইট।

গানটি উন্মুক্ত করা হয়েছে সিনেভিশনের অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেলে।

চিত্রজগত/সঙ্গীত

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

এই সপ্তাহের পাঠকপ্রিয়