রবিবার, ১৬ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

ফজলুল হক স্মৃতি পুরস্কার পেলেন ছটকু আহমেদ ও ইমরুল শাহেদ

চলচ্চিত্র সাংবাদিকতার অন্যতম পথিকৃৎ ফজলুল হকের মৃত্যুবার্ষিকীতে (২৬ অক্টোবর) প্রতি বছর দেওয়া হয় ‘ফজলুল হক স্মৃতি পুরস্কার।’ -- চিত্রজগত.কম

চলচ্চিত্র সাংবাদিকতার অন্যতম পথিকৃৎ, প্রথম চলচ্চিত্র বিষয়ক পত্রিকা ‘সিনেমা’র সম্পাদক, প্রথম শিশু চলচ্চিত্র ‘প্রেসিডেন্ট’-এর পরিচালক হলেন ফজলুল হক। তাঁর মৃত্যুবার্ষিকীতে (২৬ অক্টোবর) প্রতিবছর দেওয়া হয় ‘ফজলুল হক স্মৃতি পুরস্কার’।

এবার এই পুরস্কার পেলেন গুণী নির্মাতা ছটকু আহমেদ ও ইমরুল শাহেদ। তারা যথাক্রমে চলচ্চিত্র নির্মাণ ও সাংবাদিকতার জন্য এই স্বীকৃতি পেয়েছেন।

ফজলুল হক স্মৃতি কমিটির উদ্যোগে বৃহস্পতিবার (২৬ অক্টোবর) দুপুরে রাজধানীর পাঁচ তারকা একটি হোটেলে আয়োজন করা হয় এ পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানের। যেখানে উপস্থিত ছিলেন সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ও নাট্য নির্দেশক নাসিরউদ্দিন ইউসুফ, কোহিনুর আক্তার সুচন্দা, সুজাতা, প্রযোজক হাবিবুর রহমান হাবিব সহ ফজলুল হকের স্নেহধন্য অনেকে।

তারমধ্যে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ফজলুল হকের মেয়ে বিশিষ্ট রন্ধনশিল্পী কেকা ফেরদৌসী, প্রকৃতিবন্ধু মুকিত মজুমদার বাবু। এছাড়াও ছিলেন কিংবদন্তী অভিনেতা আফজাল হোসেন, বাচসাস এর সাবেক সভাপতি আবদুর রহমান, শিশু সাহিত্যিক আমীরুল ইসলাম, অভিনেতা শহীদুল আলম সাচ্চু সহ অনেকে।

পুরস্কারপ্রাপ্তির পর ছটকু আহমেদ ও ইমরুল শাহেদ কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন ফজলুল হক স্মৃতি কমিটির প্রতি। উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে নির্মাতা ছটুক আহমেদ বলেন, ১৯৭২ সালে ঋত্বিক কুমার ঘটকের ‘তিতাস একটি নদীর নাম’ চলচ্চিত্রে সহকারি পরিচালক হিসেবে সিনেমা অঙ্গনে আসি। এরপর দীর্ঘ ৫১ বছর এই মাধ্যমে আছি, যারা অন্যতম স্বীকৃতি ফজলুল হক স্মৃতি পুরস্কার প্রাপ্তি। এজন্য আমি সবার কাছে কৃতজ্ঞতা জানাই।

ইমরুল শাহেদ বলেন, চলচ্চিত্র সাংবাদিকতার অন্যতম পথিকৃৎ ছিলেন ফজলুল হক সাহেব। সেই পেশার জন্যই তার নামে আজকে যে পুরস্কারটি পেলাম, তার জন্য আমি অত্যন্ত কৃতজ্ঞ।

ফজলুল হক স্মৃতি পুরস্কারের অর্থমূল্য প্রতিটি ২৫ হাজার টাকা, সম্মাননা পত্র ও ক্রেস্ট। প্রয়াত ফজলুল হক স্মরণে ২০০৪ সাল থেকে এই পুরস্কার প্রবর্তন করেন বিশিষ্ট কথাশিল্পী রাবেয়া খাতুন।

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন কর্পোরেশন চলচ্চিত্রের এই গুণী মানুষটিকে শ্রদ্ধা জানাতে তাদের একটি মূল মিলনায়তনের নামকরণ করেছে ‘ফজলুল হক স্মৃতি মিলনায়তন’। চলচ্চিত্র ও গণমাধ্যমে কাজ করতে আগ্রহীদের জন্য প্রয়াত নির্মাতা সৈয়দ সালাউদ্দিন জাকীর প্রত্যক্ষ তত্ত্বাবধানে গড়ে তোলা হয়েছে ‘ফজলুল হক ইন্সটিটিউট অব মিডিয়া স্টাডিজ’ নামে একটি প্রতিষ্ঠান।

কথাশিল্পী রাবেয়া খাতুন তাঁর সহধর্মিণী। জ্যেষ্ঠপুত্র ফরিদুর রেজা সাগর শিশু সাহিত্যিক ও টিভি ব্যক্তিত্ব এবং ইমপ্রেস টেলিফিল্ম লি. ও চ্যানেল আইয়ের ব্যবস্থাপনা পরিচালক। ছোট ছেলে ফরহাদুর রেজা প্রবাল বাংলাদেশ টেলিভিশনের এক সময়ের জনপ্রিয় উপস্থাপক ও বর্তমানে অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী স্থপতি। বড় মেয়ে কেকা ফেরদৌসী বিশিষ্ট রন্ধনবিদ ও ছোট মেয়ে ফারহানা মাহমুদ কাকলী গৃহিণী।

চিত্রজগত ডটকম/মিডিয়া

সংশ্লিষ্ট সংবাদ