সোমবার, ৪ঠা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

ডিপজল-রুবেল-মৌসুমীদের শপথ না নেয়ার কারণ

নানা নাটকীয়তার পর অবশেষে দায়িত্ব নিলেন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নবনির্বাচিত কমিটির সদস্যরা। রবিবার (৬ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় শপথগ্রহণের মধ্য দিয়ে তারা সংগঠনের দায়িত্ব বুঝে নেন। আনুষ্ঠানিকভাবে সমিতির সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক হিসেবে চেয়ারেও বসেছেন ইলিয়াস কাঞ্চন ও নিপুন।

গত ২৮ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত এই নির্বাচনে মিশা-জায়েদ প্যানেলের কয়েকজনও জিতেছেন। কিন্তু তাদের কেউ শপথ নেননি। এই তালিকায় আছেন ডিপজল, রুবেল ও মৌসুমীর মতো তারকারা। যদিও মিশা সওদাগর উপস্থিত হয়ে প্রাক্তন সভাপতি হিসেবে শপথ পাঠ করিয়েছেন ইলিয়াস কাঞ্চনকে।

প্রশ্ন উঠতে পারে কেন ডিপজল-রুবেল-মৌসুমীরা শপথ গ্রহণ করেননি? এর উত্তরও সোজা। নির্বাচনে তারা মিশা-জায়েদের পক্ষে ছিলেন। কিন্তু ভোট শেষে নানা অভিযোগের ভিত্তিতে প্রার্থীতা হারিয়েছেন জায়েদ খান। তাই প্রাথমিক ফলাফলে জিতেও সাধারণ সম্পাদকের পদে আসতে পারলেন না জায়েদ।

শোনা যাচ্ছে, জায়েদ খানের প্রার্থীতা বাতিল হওয়াতেই শপথ অনুষ্ঠান বয়কট করেছেন তার প্যানেলের বিজয়ীরা। এমনও শোনা যাচ্ছে, নিজ প্যানেলের বিজয়ী প্রার্থীদের নিয়ে আলাদা শপথের আয়োজনও নাকি করবেন জায়েদ।

ভোটের পর প্রকাশিত ফলাফলে সাধারণ সম্পাদক পদে জয়ী হন জায়েদ খান। তবে তার বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ তোলেন নিপুণ। সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় থেকে সেটার তদন্তের ভার আসে নির্বাচনের আপিল বোর্ডের ওপর। আপিল বোর্ডই শনিবার (৫ ফেব্রুয়ারি) জায়েদের প্রার্থীতা বাতিল করে। একইসঙ্গে বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নিপুণকে জয়ী ঘোষণা করে।

তবে এই সিদ্ধান্ত মানছেন না জায়েদ। তিনি স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন, আইনি ব্যবস্থা নেবেন। এমনকি আপিল বোর্ডকেও অবৈধ দাবি করেছেন পরপর দুই মেয়াদে সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করা এই নায়ক।

চিত্রজগত/বিএফডিসি

সংশ্লিষ্ট সংবাদ