রবিবার, ১৬ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

জাতীয় কবিকে স্মরণ করে এবারের ‘ইত্যাদি’

ফাইল ছবি -- চিত্রজগত.কম

জনপ্রিয় টিভি ম্যাগাজিন শো ‘ইত্যাদি’ সম্প্রচার হওয়া মানে পরিবারের সকলে একসঙ্গে বসে পড়া। ৩০ বছরের বেশি সময় ধরে প্রচারিত হয়ে আসছে ইত্যাদি। সম্প্রচারের এত বছর পরে এসেও এই অনুষ্ঠানের জনপ্রিয়তা এক বিন্দু কমেনি। দর্শকরা এখনো মুখিয়ে থাকে কবে আসবে নতুন পর্ব।

‘ইত্যাদি’ ভক্তদের জন্য রয়েছে সুখবর। আগামী ২৯ জুলাই বিটিভি ও বিটিভি ওয়ার্ল্ডে রাত ৮টার বাংলা সংবাদের পর প্রচারিত হবে ইত্যাদি। ইত্যাদির রচনা, পরিচালনা ও উপস্থাপনা করেছেন হানিফ সংকেত। নির্মাণ করেছে ফাগুন অডিও ভিশন। ইত্যাদি স্পন্সর করেছে যথারীতি কেয়া কসমেটিক্‌স লিমিটেড।

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের স্মৃতি বিজড়িত হয়ে এবারের অনুষ্ঠানটি চিত্রায়ণ ধারণ করা হয়েছে ত্রিশালে। ৪৬তম মৃত্যুবার্ষিকীকে সামনে রেখে এবং তার প্রথম প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থ ‘অগ্নিবীণা’র শতবর্ষ উদ্‌যাপন উপলক্ষে ত্রিশালের এই স্থানকে বেছে নেয়া হয়। দর্শকদের বাঁধভাঙা জোয়ারে পুরো মাঠই ছিল দর্শকপূর্ণ। এবারের অনুষ্ঠানে একটি জনপ্রিয় নজরুল সংগীত গেয়েছেন বাপ্পা মজুমদার ও প্রিয়াংকা গোপ। তাদের সহযোগিতা করেছেন আরও একদল নজরুল সংগীত শিল্পী। গানটির সংগীতায়োজন করেছেন মেহেদী। রয়েছে জাতীয় কবির তিনটি গান ও দু’টি কবিতার সমন্বয়ে সৃষ্ট একটি সংগীতের সঙ্গে স্থানীয় প্রায় শতাধিক নৃত্যশিল্পীর নাচ।

নৃত্য পরিচালনা করেছেন মনিরুল ইসলাম মুকুল। এবারের পর্বেও রয়েছে কয়েকটি হৃদয় ছোঁয়া প্রতিবেদন। রয়েছে নজরুলের ত্রিশাল অধ্যায়ের সংক্ষিপ্ত বিবরণী। রয়েছে চাল নিয়ে অসাধু ব্যবসায়ীদের চালবাজীর চালচিত্র। পিএইচডি ডিগ্রিধারী একজন উচ্চ শিক্ষিত ব্যক্তির বিশাল কৃষি কর্মকাণ্ডের উপর রয়েছে প্রতিবেদন। রয়েছে ময়মনসিংহ জেলার ফুলপুর থানার আবদুল মালেকের উপর মানবিক প্রতিবেদন। ইত্যাদিতেই প্রথম শুরু হয় বিদেশি প্রতিবেদন। এবারের পর্বে রয়েছে গ্রিসের অ্যাক্রোপোলিসের উপর তথ্যবহুল প্রতিবেদন।

দর্শক পর্বের নিয়ম অনুযায়ী ধারণস্থান ত্রিশাল এবং জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামকে নিয়ে করা প্রশ্নোত্তরের মাধ্যমে উপস্থিত দর্শকের মাঝখান থেকে ৪ জন দর্শক নির্বাচন করা হয়। ২য় পর্ব সাজানো হয়েছে কিছু নজরুল সংগীত ও লোক সংগীতে। এই পর্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন বিরল বাদ্যযন্ত্র সংগ্রাহক ময়মনসিংহের সন্তান রেজাউল করিম আসলাম। দেশীয় বাদ্যযন্ত্রের বিশাল আয়োজনে সাজানো হয়েছিল দর্শকপর্ব। নিয়মিত পর্বসহ এবারো রয়েছে বিভিন্ন সমসাময়িক ঘটনা নিয়ে বেশকিছু সরস অথচ তীক্ষ্ণ নাট্যাংশ। বরাবরের মতো এবারো ইত্যাদির শিল্প নির্দেশনা ও মঞ্চ পরিকল্পনায় ছিলেন মুকিমুল আনোয়ার মুকিম। পরিচালকের সহকারী হিসেবে ছিলেন যথারীতি রানা সরকার ও মোহাম্মদ মামুন।

চিত্রজগত/টেলিভিশন

সংশ্লিষ্ট সংবাদ