মঙ্গলবার, ১৬ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

জনপ্রিয় সুরকার-সঙ্গীত পরিচালক আবু তাহের-এর ২৩তম মৃত্যুবার্ষিক আজ

ছবি: সংগ্রহ -- চিত্রজগত.কম

জনপ্রিয় সুরকার-সঙ্গীত পরিচালক আবু তাহের-এর ২৩তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ। তিনি ১৯৯৯ সালের ১৪ জুলাই, ঢাকায় মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল মাত্র ৪৫ বছর। অকাল প্রয়াত এই গুণি সঙ্গীত পরিচালকের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানাই। তাঁর বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করি।

আবু তাহের ১৯৫৪ সালের ১ নভেম্বর, ঢাকায় জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বি এ (অনার্স) এবং সমাজবিজ্ঞানে এম এ পাস করেন। তাঁর পিতা প্রখ্যাত সঙ্গীতজ্ঞ ধীর আলী মিয়া। দাদা ওস্তাদ শের আলী মিয়া (এই উপমহাদেশের প্রথম বাঙ্গালী মুসলমান যন্ত্রশিল্পী ছিলেন)। তাঁর ছোট চাচা মনসুর আলীও বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় সংগীত পরিচালক ছিলেন এবং আরেক চাচা আলাউদ্দীন আলী বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের একজন খ্যাতিমান সুরকার-সংগীত পরিচালক। তাঁর ছোট ভাই আলী আকরাম শুভও জনপ্রিয় সুরকার-সংগীত পরিচালক।

সংগীত পরিবারে জন্ম নেয়া আবু তাহের, চাচা সুরকার-সংগীত পরিচালক আলাউদ্দীন আলী’র সহকারী হিসেবে চলচ্চিত্রে আসেন।
একক সঙ্গীত পরিচালক হিসেবে তাঁর ছবিগুলোর মধ্যে- ভাগ্যবতী, বৌমা, ঘোমটা, ধনবান, সতী নারীর পতি, বেদের মেয়ে জোসনা, ক্ষমা, ক্ষতিপূরণ, আশা ভালবাসা, রঙ্গীন সুজন সখি, তুমি আমার, সুখের আগুন, মিথ্যার রাজা, দোলন চাঁপা, গাড়িয়াল ভাই, ভালবাসার ঘর, রাখাল রাজা, শঙ্খমালা, পাগল মন, বালিকা হলো বধূ, দুর্জয়, ডন, আবদুল্লাহ, জবাবদিহি, বুক ভরা ভালোবাসা, আখেরী মোকাবেলা, এ বাঁধন যাবে না ছিঁড়ে, প্রেম পিয়াসি, গরিবের বিচার নাই, অগ্নিসন্তান, জীবন সংসার, মেয়ের অধিকার, বাবা কেন আসামী, অন্যতম।

আবু তাহেরের সুর করা জনপ্রিয় গানসমূহের মধ্যে আছে- আমি হ্যামিলিনের সেই বাঁশিওয়ালা…, বেদের মেয়ে জোসনা আমায় কথা দিয়েছে…, পৃথিবীতে সুখ বলে যদি কিছু থেকে থাকে, তার নাম ভালোবাসা তার নাম প্রেম..,
জ্বালাইয়া প্রেমের বাতি কোথায় তুমি থাকো রে…, তুমি কেমন গাড়িয়াল শুধু টানো পরের মাল…, আমার জন্ম তোমার জন্য…, সোহাগে আদরে বেঁধেছো আমারে এ বাঁধন যাবে না ছিঁড়ে.., তোরে পুতুলের মতো করে সাজিয়ে, হৃদয়ের কোঠরে রাখব…(সংগীত), এক তাজমহল যাব যে গড়ে…, সংসার সুখের হয় রমনির গুণে…, চতুরদোলাতে চড়ে দেখ ঐ বধূ যায়.. (সংগীত), সোনামূখী মা আমার পিনতো পাটের শাড়ি.., ইত্যাদি।

‘বেদের মেয়ে জোসনা’ ছবির গানের রেকর্ড পরিমাণ ব্যবসা হওয়ায়, আবু তাহের সুর ও সংগীত পরিচালক হিসেবে ভারতের এইচ এম ভি কোম্পানি কর্তৃক ‘ডাবল প্লাটিনাম ডিস্ক পুরস্কার’ লাভ করেন।

বাংলাদেশ টেলিভিশন ও বেতারের অনেক জনপ্রিয় আধুনিক এবং দেশাত্ববোধক গানেরও সুর করেছেন আবু তাহের। যা দর্শক-শ্রোতাদের মনে আজও বিরাজমান।

ব্যক্তিজীবনে আবু তাহের, মিনা তাহেরের সাথে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। এই দম্পতির দুই ছেলে, অঙ্কুর ও অন্তর।

সঙ্গীত পরিবারে জন্ম নেয়া আবু তাহের ছিলেন, প্রতিভাবান একজন সুরকার ও সংগীত পরিচালক। তাঁর সুরারোপিত অনেক গানই জনপ্রিয়তার শীর্ষ অবস্থান দখল করেছে। তিনি নিজেও হয়েছেন জনপ্রিয় ও প্রসংশিত। এই মেধাবী মানুষটি সংগীতজগতে পুরোপুরি তাঁর প্রতিভার স্ফুরণ ঘটাতে পারেননি। বড় অকালে-অসময়ে তাঁকে চলে যেতে হয়েছে, বিধাতার অমোঘ নিয়মে। তবুও সংগীতে তাঁর যতটুকু অবদান, তা স্মরণ রাখার মতো। আবু তাহের বেচেঁ থাকবেন তাঁর কর্মে, তাঁর গানে।

চিত্রজগত/সঙ্গীত

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

এই সপ্তাহের পাঠকপ্রিয়