শুক্রবার, ১৪ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

চলতি মাসে প্রেক্ষাগৃহে যাচ্ছে ৬ ‍সিনেমা

অনেক দিন পর ঢালিউডে যেন ঈদের আনন্দ। একের পর এক সিনেমার শুটিং হয়েছে, তৎপর ছিলেন প্রযোজক–পরিচালকেরা, ব্যস্ত ছিলেন অভিনয়শিল্পী ও কলাকুশলীরাও। কিন্তু সিনেমা মুক্তি পাচ্ছে না বলে একরকম হতাশাই পেয়ে বসেছিল তাঁদের। এবার সেই খরা কাটছে। জুন মাসে ঢালিউডে মুক্তি পাচ্ছে ছয়টি নতুন সিনেমা।

গত ঈদুল ফিতরে মুক্তি পেয়েছে চারটি সিনেমা। তবে সত্যিকারের প্রতিযোগিতা ছিল শাকিবের ‘গলুই’ ও সিয়ামদের ‘শান’–এর মধ্যে। তখন থেকেই লক্ষ করা গেছে, দর্শকদের আগ্রহ বাড়ছে। প্রেক্ষাগৃহে ফিরতে শুরু করেছেন তাঁরা। এ সাড়া সাহস জুগিয়েছে প্রযোজকদেরও। অনেক প্রযোজকই প্রস্তুত ছবিটি এবার মুক্তির জন্য আটঘাট বেঁধেছেন।

চলচ্চিত্রসংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা বলছেন, দীর্ঘদিন ধরে চলচ্চিত্রের অবস্থা ভালো যাচ্ছিল না। তা ছাড়া করোনা মহামারির কারণে গত দুই বছরে আরও পিছিয়েছে ঢাকার সিনেমা। এরই মধ্যে করোনা সংক্রমণ কমে আসায় ঈদুল ফিতরে মুক্তি দেওয়া ছবিগুলো কিছুটা আশার আলো দেখিয়েছে। লোকসানের ভয়ে যাঁরা সিনেমা প্রস্তুত করে ভালো সময়ের অপেক্ষায় বসে ছিলেন, তাঁরা এখন ছবির মুক্তির তৎপরতা শুরু করেছেন। প্রযোজক, পরিচালক ও প্রযোজক সমিতি সূত্রে জানা গেছে, জুন মাসে একগুচ্ছ সিনেমা মুক্তির জন্য প্রস্তুত। আগামী ৩ জুন মুক্তি পাচ্ছে অঞ্জন আইচ পরিচালিত ‘আগামীকাল’। একই দিনে মুক্তি পাচ্ছে রাকিবুল আলমের ‘ভাইয়া রে’ ছবিটি। শামীম আহমেদের ‘বিক্ষোভ’ ও মোস্তাফিজুর রহমানের ‘হৃদ মাঝারে তুমি’ মুক্তি পাবে ১০ জুন। ১৭ জুন মুক্তি পাচ্ছে অনন্য মামুনের ‘অমানুষ’ ও সৈকত নাসিরের ‘তালাশ’।

এক মাসে এতগুলো ছবি মুক্তির ব্যাপারে প্রযোজক নেতা খোরশেদ আলম বলেন, ঈদের ছবিগুলো নিয়ে আলোচনা দেখে প্রযোজকেরা এখন সাহস পাচ্ছেন। এ কারণেই সবাই ছবির মুক্তি দিতে এগিয়ে আসছেন। তা ছাড়া দীর্ঘদিন ধরে অনেকগুলো ছবি প্রস্তুত হয়ে পড়ে আছে। দীর্ঘ সময় পড়ে থাকার কারণে ছবির মেরিটও নষ্ট হয়ে যেতে পারে, এটিও ভাবছেন প্রযোজকেরা। তিনি মনে করেন, জুন মাসে একই তারিখে দুটি ছবি মুক্তি পাচ্ছে। এটি না হলেই ভালো হতো। হলসংখ্যা কম, সেই বিবেচনায় এক দিনে একটি করে ছবি মুক্তি দিলে ছবির হলসংখ্যা বাড়ত, আয়ও হয়তো বাড়ত।

কথা হলো কয়েকজন হলমালিকের সঙ্গে। মুক্তি পাওয়া ছবির সংখ্যা বাড়ছে বলে তাঁরাও হয়ে উঠছেন আশাবাদী। চট্টগ্রামের সিনেমা প্যালেস ও ঝুমুর সিনেমা হলের স্বত্বাধিকারী আবুল হোসেন বলেন, ‘আমাদের আগের চেয়ে কিছু দর্শক বেড়েছে। সেটাও ঈদের সময় থেকে। এখন সামনে ভালো সিনেমা দরকার, তাহলে আমরা হল বাঁচাতে পারব।’ তিনি জানালেন, ৩ জুন ঝুমুর সিনেমা হলে নতুন ছবি মুক্তি পাচ্ছে।

আগামীকাল ছবির অভিনেতা ইমন বলেন, মাঝে সিনেমার অবস্থা ভালো ছিল না। নানা সমস্যার কারণে প্রযোজক, হলমালিক উভয়ই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। গত ঈদ থেকে দর্শকেরা হলে ফিরতে শুরু করেছেন। এসব দর্শক ধরে রাখতে হলে নতুন সিনেমা মুক্তির কোনো বিকল্প নেই।

চিত্রজগত/চলচ্চিত্র

সংশ্লিষ্ট সংবাদ