মঙ্গলবার, ১৬ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

‘চলচ্চিত্রের উন্নয়নে সংশ্লিষ্ঠ ১৮টি সংগঠনকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে’

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন-২০২২

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত নায়িকা নিপুন আগামী ২৮ জানুয়ারি অনুষ্ঠিতব্য বাংলাদেশ ‘চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি’র নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। যতই সময়ে ঘনিয়ে আসছে নির্বাচনে অংশগ্রহণকারীরা আরও সক্রিয় হয়ে উঠছেন নিজেদের জয়ের ব্যাপারে। তবে এবার যেহেতু সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক চারটি পদের একটিতে শুধু নারী প্রার্থী, অর্থাৎ নিপুন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তাই বলা যায় এবারের নির্বাচনের দৃষ্টি অনেকটাই নিপুনের দিকে।

এরইমধ্যে নিপুনের জয়ের ব্যাপারেও এফডিসিতে অনেকেই আশাবাদী হয়ে উঠেছেন। তার দৃঢ় আশাবাদ মূলক কথা, আগামীতে শিল্পীদের পাশে থাকার অঙ্গীকার, শিল্পীদের জন্য নিবেদিত হয়ে কাজ করার অঙ্গীকার এমন কী বিএফডিসিতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আনার যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, তাতেও যেন নিপুনের প্রতি শিল্পীদের আস্থা বেড়ে গেছে অনেকাংশে। এফডিসিতে এই মুহুর্তে নিপুন বেশ সময় দেবার চেষ্টা করছেন, ভোটারদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করছেন, সেইসাথে ভোটারদের তার পাশে থাকার আহবানও জানাচ্ছেন তিনি।

চিত্রনায়িকা নিপুন বলেন,‘চলচ্চিত্রের শিল্পীদের মধ্যে যে বিভেদ আছে, বিবাদ আছে তা দূর করার সর্বাত্বক চেষ্টা থাকবে আমার। সেই সাথে আমাদের সঙ্গে যারা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন নির্বাচনের ফলাফল যাই হোক না কেন তাদের সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রাখবো-ইনশাআল্লাহ। মূলকথা হলো আমরা যে চলচ্চিত্র নামক একটি পরিবারের মাঝে আছি, পারিবারিক সেই পরিবেশটাই আমি, আমরা সৃষ্টি করতে চাই।

শিল্পী সমিতি হবে শিল্পীদের পরম আস্থার জায়গা, ভালোবাসার জায়গা। নিজেদের সুখ দু:খ শেয়ার করার জায়গা, সেইসাথে সৃষ্টিশীল কিছু চিন্তার জায়গা। ভোটারদের প্রতি শ্রদ্ধা ভালোবাসা রেখেই বলছি, আপনারা আমাদের প্যানেলের পাশে থাকুন, আমরা সর্বাঙ্গীনভাবে আপনাদের পাশে থাকবো ইনশাআল্লাহ।’

নিপুন জানান, শিল্পী সমিতির উদ্যোগে সিনেমা নির্মাণ করার পরিকল্পনা রয়েছে। এদিকে নিপুন কিছুদিন আগেই শেষ করেছেন শহীদ রায়হান পরিচালিত ‘মনোলোক’ সিনেমার কাজ। এটি একটি মনস্তাত্বিক সিনেমা। এছাড়াও মুক্তির অপেক্ষায় আছে নিপুন অভিনীত সাইদুল ইসলাম রানা পরিচালিত ‘বীরত্ব’ সিনেমাটি। নিপুন অভিনীত সর্বশেষ মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমা হচ্ছে উত্তম আকাশ পরিচালিত ‘ধুসর কুয়াশা’। ২০০৮ সালে ‘সাজঘর’ এবং ২০০৯ সালে ‘চাঁদের মতো বউ’ সিনেমাতে অভিনয়ের জন্য তিনি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে ভূষিত হন।

চিত্রজগত/বিএফডিসি

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

এই সপ্তাহের পাঠকপ্রিয়