মঙ্গলবার, ২৭শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

কান ফিরে বাবা ও মেয়েকে জড়িয়ে কাঁদলেন বাঁধন

এই তো জুলাই মাসের কথা। ফ্রান্সের কান শহরের পালে দে ফেস্টিভ্যাল ভবনের সাল দুবুসি প্রেক্ষাগৃহে মুহুর্মুহু তালির শব্দে অঝোরে দু’চোখে পানি ঝরেছিল জনপ্রিয় অভিনেত্রী আজমেরী হক বাঁধনের। পরিচালক আবদুল্লাহ মোহাম্মাদ সাদের পাশে দাঁড়িয়ে নায়িকা রেহানার সেই কান্নার ভিডিও অন্তর্জালে দেখে হৃদয় ছুঁয়েছে সিনেমাপ্রেমীদের।

ফের সেই দৃশ্যের দেখা মিলল, তবে এবার সেটা ঢাকায়। গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় রাজধানীর মহাখালীর স্টার সিনেপ্লেক্সে ‘রেহানা মরিয়ম নূর’ সিনেমার ‘প্রেস শো’ শেষেও কেঁদেছেন আজমেরী হক বাঁধন।

সিনেমা শেষে যখন হলভর্তি দর্শক হাততালি দিয়ে অভিনন্দন জানাচ্ছিল পুরো টিমকে; তখন বাবা আমিনুল হক ও মেয়ে সায়রাকে বুকে জড়িয়ে কেঁদেছেন নায়িকা।

‘প্রেস শো’ শেষে এনটিভি অনলাইনের সঙ্গে এক আলাপচারিতায় বাঁধনের বাবা আমিনুল হক জানিয়েছেন, ‘সিনেমাতে বাস্তব জীবনের সংগ্রাম ফুটিয়ে তুলেছে বাঁধন। এ জন্য আমার কাছে বেশি ভালো লেগেছে। বাবা হিসেবে মেয়ের সাফল্যে আমি গর্বিত। সিনেমা দেখা বাঁধনের মেয়ে সায়রাও মায়ের অভিনয় দেখে কেঁদেছে। এমনিতেই সে খুব ইমোশনাল। কান্নার দৃশ্য দেখে নিজেকে ধরে রাখতে পারেনি।’

‘প্রেস শো’র শুরুতে মাত্র এক মিনিটের জন্য হাজির হয়েছেন সিনেমাটির পরিচালক আবদুল্লাহ মোহাম্মদ সাদ। তিনি সিনেমার সঙ্গে জড়িত সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে তাঁদের কাজের প্রশংসা করেন।

আগামীকাল শুক্রবার (১২ নভেম্বর) দেশের চার জেলায় মুক্তি পাচ্ছে ‘রেহানা মরিয়ম নূর’। ৩৭ বছর বয়সী একজন সহকারী অধ্যাপকের জীবন-সংগ্রামের গল্পে নির্মিত হয়েছে ‘রেহানা মরিয়ম নূর’। সিনেমাটির প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন আজমেরী হক বাঁধন, চরিত্রের নাম রেহানা।

বিভিন্ন চরিত্রে আছেন সাবেরী আলম, আফিয়া জাহিন জায়মা, আফিয়া তাবাসসুম বর্ণ, কাজী সামি হাসান, ইয়াছির আল হক, জোপারি লুই, ফারজানা বীথি, জাহেদ চৌধুরী মিঠু, খুশিয়ারা খুশবু অনি, অভ্রদিত চৌধুরী।
এটি নির্মাতা আবদুল্লাহ মোহাম্মাদ সাদের দ্বিতীয় সিনেমা, এর আগে ২০১৬ সালে ‘লাইভ ফ্রম ঢাকা’ শিরোনামে একটি সিনেমা পরিচালনা করেছিলেন এই পরিচালক।

চিত্রজগত/ঢালিউড

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

এই সপ্তাহের পাঠকপ্রিয়